মোহনায় প্রার্থনা

প্রিয়জনের সঙ্গে শেয়ার করুন :--👍

 98 total views

পুরো মোহন নয় এ আখ্যান।

মোহনা পুরী, জরানগরে তাসের মন্দিরের অসংসারী বাসিন্দা , সাতেরো থেকে সত্তায় গৈরিক জড়িয়ে নিয়েছেন।
এখন ষাট পেরিয়ে সাধনায়
আরো বেশি মগ্ন, পুরো জীবন তাঁর দেবালয়কেন্দ্রিক অসংখ্য আবর্তন;
আসক্তির সমস্ত শেকড় কেটে ফেলেছেন
বলে ভক্তগণের দাবি।
তিনি অবশ্য পরম মার্গে
নিজের অগ্রগতি নিয়ে চুপ করেই থাকেন।
কোনো এক ঘোর চৈত্রের দুপুরে
শিষ্যার সঙ্গে শ্যামের বাজারে
আশ্রমের দুষ্টুমিষ্টি গোপালের জন্য
দরদাম করে পোষাক কিনতে কিনতে
তাঁর স্তন ফেটে দুধ বেরিয়ে এল।
মাথার ওপর দিয়ে উড়ে যায় সন্ন্যাস,
অনুশাসন, সাধনার সুকঠিন পথে
পালনীয় কর্তব্য সমূহ এবং
গুরুর কঠোর নির্দেশ…
জীবনে সবচেয়ে বড় অধর্ম
যা কিছু স্বাভাবিক তাকে অস্বীকার,
মেনে নিলেন মোহনা পুরী।
চোখ বন্ধ করে বললেন,
প্রভু, আমাকে রেখ না আর
এমন বিভ্রমে যে সংযমের নামে
পরমাপ্রকৃতিকে পুড়িয়ে পুড়িয়ে ধর্ম হয়।
0

Publication author

0
আমার নাম শুভশ্রী রায়। জন্ম ১২ জানুয়ারি, ১৯৭১ কলকাতা শহরে। পনেরো ষোল বছর বয়স থেকে কবিতা লিখছি। সেই অবুঝ কৈশোরে যতটা আগ্রহ নিয়ে লিখতাম, এখনো ততটাই আগ্রহ নিয়ে লিখি। কবিতার প্রতি আমার ভালোবাসা কোনো দিন কমবে না।
Comments: 1Publics: 121Registration: 28-02-2022
প্রিয়জনের সঙ্গে শেয়ার করুন :--👍
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

পরিচিতি বাড়াতে একে অপরের লেখায় মন্তব্য করুন। আলাপের মাধ্যমে কবিরা সরাসরি নিজেদের মধ্যে কথা বলুন। (সহজেই কবিকল্পলতা প্রকাশনী ব্যাবহারের জন্য আমাদের PWA এপ্লিকেশন আপনার ডিভাইসে ইন্সটল করে নিন)