আমি শিখে গিয়েছি

প্রিয়জনের সঙ্গে শেয়ার করুন :--👍

 86 total views

আমি রাস্তার পাশের অর্জুন গাছটি দ্যাখতে দ্যাখতে —
শিখে গিয়েছি কিভাবে ধৈর্য্য ধরতে হয়
কেউ আমাকে গালি দিলে আগের মতো আর হুট করে রক্ত গরম হয়না
রেগেমেগে খুব কষিয়ে কানের নীচে একখানা চড় বসিয়ে দেইনা
নীরবে হজম করে পথ চলি —-
তার প্রতিদান দিতে দু’হাত তুলে আরশের মালিকের কাছে ফরিয়াদ করি।
আমি কবি, ধুসর কবি —-
আঁকিবুঁকি লিখে গাধা-গাধা পান্ডুলিপি জমা করি
কখনো প্রেম-বিরহ, যাতনার কথা লিখি —
আবার কখনো স্বৈরাচারী নিপাতনের কথা বলি —
মজলুম আর মানবতার পক্ষে —
অত্যাচারীর বিপক্ষে কলম ক্ষুরধার করি।
আহত শঙ্খচিলকে দ্যাখে আমি শিখে গিয়েছি —
কিভাবে সারিয়ে তুলতে হয় ক্ষতস্থান —
ভাঙা ডানায় ভর দিয়ে কিভাবে উড়তে হয় —
আমি শিখে গিয়েছি হৃদয়ের ক্ষতস্থানে মলম মাখিয়ে কিভাবে বাঁচতে হয়।
আমি চিরকৃতজ্ঞ পরিবার– প্রতিবেশী এবং পাড়া-পড়শিদের কাছে
তাদের অবহেলা-অনাদর-সমালোচনা আমার কলম ক্ষুরধার করেছে
ঝুলিতে এনে দিয়েছে কবি-র খ্যাতি।
আমি শিখে গিয়েছি একলা একা পথচলা —
কারোর সাপোর্ট ছাড়াই এখন হেঁটে বহুদূর যেতে পারি
সমাজপতিদের ঘৃণা-ই আমার চলার পাথেয়।

১৩/১০/২০২২ইং,
বড়মুড়া, কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

0

Publication author

0
মোঃ আকাইদ-উল-ইসলাম (মিটু সর্দার)। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাধীন কসবা উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত বড়মুড়া গ্রামে ১৯৮৭ সালের ১০ই নভেম্বর, এক সম্ভান্ত্রশালী মুসলিম পরিবারে কবির জন্ম। কবির পিতার নাম নূরুল ইসলাম (মাষ্টার) আর পিতামহের নাম আলতাব আলী সর্দার
Comments: 0Publics: 144Registration: 02-04-2022
প্রিয়জনের সঙ্গে শেয়ার করুন :--👍
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

পরিচিতি বাড়াতে একে অপরের লেখায় মন্তব্য করুন। আলাপের মাধ্যমে কবিরা সরাসরি নিজেদের মধ্যে কথা বলুন। (সহজেই কবিকল্পলতা প্রকাশনী ব্যাবহারের জন্য আমাদের এপ্লিকেশনটি ইন্সটল করে নিন)