কবিতা আসলে

প্রিয়জনের সঙ্গে শেয়ার করুন :--👍

 30 total views

কবিতা আসলে এক নদী
তাতে ভাসিয়ে দিই আমার
সমস্ত বোবা সারিবদ্ধ ‘যদি’।
তাতে ভাসিয়ে দিই দ্বিধা,
আমার সব না ঘুমনো রাত
যাতে তারা বদলে প্রভাত
হয়ে ফিরে আসে আমার অবধি।

কবিতা আসলে স্রোত নিরর্থক
তাতে ভাসাই আমার সব সার্থক
আমার সব দৈনিক ওঠাপড়া
এবং যাবতীয় যত ভাঙাগড়া।
তারা স্রোতে হেসে ভেসে ভেসে
নতুন কথা হয়ে ফিরে আসে
আমার পুরনো কলমের মুখে।

কবিতা আসলে গাঢ় নদী এক
তাতে অনায়াসে ভাসিয়ে দিই
আমার যত রয়েছে ‘অনেক’,
তার জলজ আলোকে ভেসে
আমার সেই কবেকার অহং
কষ্টে উপার্জিত সমাজী ভড়ং
হেসে হেসে পৌঁছিয়ে যায়
দৃষ্টির অগম্য এক শেষমেশে।

কবিতা আসলে এক স্বচ্ছ প্রবাহ
তাতে ভাসিয়ে দিই সব সন্দেহ
যত আছে আর যত হবে পরে
তারপরে স্বচ্ছ সে বহমান জল
কখনো স্বতঃস্ফূর্ত ঢুকে পড়ে
আমার একান্ত সৃজনের ঘরে।

কবিতা আসলে জাদুভরা এক আয়না
মিথ্যার মুখ তাকে দেখানো যায় না
কবিতা আসলে আমার জনম পূর্ব
ভেবেছি সময় এলে তাকে খুঁড়ব
যাতে পেয়ে যাই এ জন্মের মণি।
কবিতা আসলে কিছু নয়, এক স্বচ্ছ
নদীর ততোধিক স্পষ্ট কলকল ধ্বনি।

Publication author

আমার নাম শুভশ্রী রায়। জন্ম ১২ জানুয়ারি, ১৯৭১ কলকাতা শহরে। পনেরো ষোল বছর বয়স থেকে কবিতা লিখছি। সেই অবুঝ কৈশোরে যতটা আগ্রহ নিয়ে লিখতাম, এখনো ততটাই আগ্রহ নিয়ে লিখি। কবিতার প্রতি আমার ভালোবাসা কোনো দিন কমবে না।
Comments: 1Publics: 121Registration: 28-02-2022
প্রিয়জনের সঙ্গে শেয়ার করুন :--👍
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

একে অপরের কবিতায় মন্তব্য করে সমালোচনা করুন। আপনার পরিচিতি লাভ করুন।