আমি শিখতে চাই

প্রিয়জনের সঙ্গে শেয়ার করুন :--👍

 22 total views

কবি আমাকে ভালোবাসা শেখাবে?
কতো সুন্দর ভালোবাসার হৃদয় নিংড়ানো কথা
তুমি তোমার কবিতায় ফুটিয়ে তোল।
যখন আমি তোমার কবিতাগুলো পড়ি
আমার ইচ্ছে করে রংধনু থেকে লাল রংটা এনে
জীবন রাঙিয়ে নতুন করে আবার প্রেমে পড়তে
একদম তোমার কবিতার মতো।
কবি আমার কি তোমার মতো হৃদয় নেই?
আমি ক্যানো তোমার মতো লিখতে পারিনা?
উপলব্ধি করতে পারিনা একদম তোমার মতো?
যে লিখার পঙক্তিতে পঙক্তিতে শুধু –
ভালোবাসার খই ফুটে গোলাপের পাপড়ির মতো ঝরে পড়বে প্রজন্মের হৃদয়ে।
কবি আমাকে কি একটু প্রেম, একটু কল্পনা শেখাবে?
আমি আবার প্রেমের দরিয়ায় সাঁতার কাটতে চাই
ভালোবাসার তরী ভাসাতে চাই অথৈজলে।
কল্পনায় আঁকতে চাই প্রেয়সীর কারুকার্য মুখ
হৃদয়ে শিহরণ জাগানো চোখ, ঠোঁট, বুক।
সেই দেড়যুগ আগে খেলেছিলাম প্রেম-প্রেম খেলা
কবি আমাকে আবার নতুন করে শিখিয়ে দাওনা
নিজেকে আরেকটি বার হারিয়ে দিতে চাই।
আরেকটি বার – কেবলমাত্র আরেকটি বার
প্রেয়সীর নগ্ন হাতে ভালোবাসার শরাব পান করে
আমৃত্যু মাতাল হ’য়ে থাকতে চাই।
কবি আমাকে কি শেখাবে? –
ভালোবাসার কবিতাগুলো কিভাবে লিখে?
আমি বহুবার খাতা-কলম নিয়ে গিয়েছি –
বসন্তের ফুলের মউমউ গন্ধের কাছাকাছি
হেমন্তের ফসলের মাঠে রুপোলী তাঁরা ভরা রাতে।
আমি গিয়েছি –
সমুদ্র সৈকতে স্নান শেষে বালুতে শুয়ে থাকা অর্ধনগ্ন তরুণীদের কাছে
গেলাং শহরের রাস্তার পাশে দাড়িয়ে থাকা ডানাকাটা পরীরদের বুকের ‘পর মাথা রেখেও চেষ্টা করেছি
আমি পারিনা কবি – আমি পারিনা।
তুমি এতো সুন্দর করে প্রেমকাব্য কিভাবে লিখো?
তোমার প্রতিটি লেখায় রস থাকে –
শব্দের ভাঁজে ভাঁজে থাকে অমৃত সুধা।
প্রেমকাব্যের শব্দমালা আমি খুঁজেছি –
বস্তির বিবর্ণমুখের কচি শিশুদের নির্মল হাসিতে,
মার্বেল প্যালেসের উত্তরে সোনাগাছির ঝুপড়িতে
দৌলতদিয়া, কান্দুপট্টি, টানবাজার, সন্ধ্যাবাজার, গাঙ্গিনাপাড়ের ছোট্ট ছোট্ট খুপরিতে –
আমি প্রেম খুঁজেছি একটি প্রেমকাব্য লিখতে।
আমার হৃদাকাশে সুখের একফালি চাঁদ হাসে না
কলমের কালিতে ঝরেনা প্রেমের রস –
হৃদয়ের লোহিত রক্ত মিশে প্রতিবাদের ঝাঁঝালো মিছিল নিয়ে আসে
বিরহিনীর দীর্ঘশ্বাসে ভেসে আসে হৃদয় পুড়া গন্ধ।
কবি আমাকে ভালোবাসা শেখাবে?
শেখাবে বর্ণমালা?
আমি শিখতে চাই প্রেম –
খেলতে চাই প্রেমের সাতচারা কিংবা দাড়িয়াবান্ধা।
আমাকে নিয়ে চলো কবি আবেগের দেশে
বাকি জীবন কাটিয়ে দেবো হেঁসে।
কবি আমার হৃদয়ে কি প্রাণ এবং প্রেম জাগাবে?
আখাউড়া হীরাপুরের নাজমিন একযুগ আগে –
হৃদয়ের শেকড়-বাকড় গুলো কেটে দিয়ে ছিলো
বুকের অলিন্দে হৃদয় আছে,প্রাণ নেই,অনুভূতি নেই।
কবি আমি তোমার মতো প্রেমিক পুরুষ হতে চাই
‘বনলতা সেন’-এ তোমাকে যেভাবে পেয়েছি
যেভাবে পেয়েছি ‘অ-নামিকা’ এবং ‘অভিশাপ’-এ।
আমার হৃদয়ের ভাঁজে ভাঁজে প্রেম জাগিয়ে তোল কবি
হারানো প্রেয়সীকে খুঁজে প্রেমের রশিতে বেঁধে রাখতে চাই
তার চোখে যেন স্বর্গ দ্যাখতে পাই।
কবি আমাকে শেখাও –
প্রণয়লীলা, অনুরাগ, কল্পনা, খোয়াব, আসক্তি
আমাকে শেখাও সৌজন্যসূচক যত্নশীল হওয়া।
কবি আমাকে শেখাও উদারতা,ক্ষমা,ত্যাগ
শেখাও কবি মানুষ হওয়ার মন্ত্র আমাকে শেখাও।

২৮/০৫/২০২২ সৌদি আরব

Publication author

মোঃ আকাইদ-উল-ইসলাম (মিটু সর্দার)। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাধীন কসবা উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত বড়মুড়া গ্রামে ১৯৮৭ সালের ১০ই নভেম্বর, এক সম্ভান্ত্রশালী মুসলিম পরিবারে কবির জন্ম। কবির পিতার নাম নূরুল ইসলাম (মাষ্টার) আর পিতামহের নাম আলতাব আলী সর্দার
Comments: 0Publics: 91Registration: 02-04-2022
প্রিয়জনের সঙ্গে শেয়ার করুন :--👍
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

একে অপরের কবিতায় মন্তব্য করে সমালোচনা করুন। আপনার পরিচিতি লাভ করুন।